প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজশাহীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাই-টেক পার্কে নির্মিত শেখ কামাল আইটি ইনকিউবেটর ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্র উদ্বোধন করেছেন।

উদ্বোধন হয়েছে শেখ কামাল আইটি ইনকিউবেটর ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্র
ছবি: ইন্টারনেট থেকে সংগৃহীত

বুধবার ঢাকার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে ফেনী ১১৪ মেগাওয়াট ভারী জ্বালানী তেল চালিত বিদ্যুৎকেন্দ্রটি বুধবার ঢাকার গণভবন থেকে সাতটি জেলা ও ২৩ টি উপজেলায় ১০০% বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন করেন।

২,০০০ বর্গফুট শেখ কামাল আইটি ইনকিউবেটর এবং প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ভবনে বহুমুখী প্রশিক্ষণ সুবিধা, উচ্চমানের স্টার্ট-আপস, বৃষ্টির জল সংগ্রহ এবং পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তির উত্স রয়েছে।

কেন্দ্রটি আইটি জ্ঞান-ভিত্তিক সমাজ গঠনে এবং দেশে বিশেষত উত্তরাঞ্চলে কর্মসংস্থান তৈরিতে সহায়তা করবে।

আইসিটি বিভাগের আওতাধীন বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ রাজশাহীর পোবা উপজেলার নবীনগরে ৩০.৬৭ একর জমিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাইটেক পার্ক বাস্তবায়ন করছে।

হাই-টেক পার্কে ৫০% এরও বেশি দৈহিক অবকাঠামোগত উন্নয়ন কাজ ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে, যা স্থানীয় এবং বিদেশী বিনিয়োগকারীদের আঁকার পাশাপাশি আইটি এবং আইটিএস খাতে নতুন উদ্যোক্তা সংস্থাগুলিকে ইনকিউবেশন সুবিধা প্রদান করে।

হাই-টেক পার্কটির নির্মাণ কাজ ২০১৬ সালে শুরু হয়েছিল, যা প্রায় ১৪,০০০ যুবকদের কাজের সুযোগ তৈরি করবে।

প্রকল্পের প্রধান অপারেশনগুলির মধ্যে রয়েছে জমি উন্নয়ন, ২.৭০ লক্ষ বর্গফুট জমির উপর একটি দশ তলা সিলিকন টাওয়ার, সাবস্টেশন এবং জেনারেশন বিল্ডিং, অভ্যন্তরীণ রাস্তা ও নালা, সীমানা প্রাচীর এবং উচ্চ-গতির ইন্টারনেট।

তাদের পুরোপুরি বিদ্যুতের আওতায় আসা সাতটি জেলা হ’ল ঢাকা, ফেনী, গোপালগঞ্জ, নাটোর, পাবনা, জয়পুরহাট এবং মেহেরপুর।

প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক বিষয়ক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম, প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী, প্রাক্তন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী, বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, আইসিটি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ডাঃ আহমদ কাইকাউস সঞ্চালনা করেন আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এনএম জেউল আলম এবং বিদ্যুৎ বিভাগের সচিব ড. সুলতান আহমেদ আইসিটি ও বিদ্যুৎ খাত নিয়ে দুটি উপস্থাপনা করেছেন।