আসসালামু আলাইকুম
আশাকরি সবাই ভালো আছেন।
সবাই ভালো থাকেন ভালো রাখেন এই প্রত্যাশাই করি সব সময়।
আজ নিয়ে আসলাম সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন “SEO” নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা (পর্ব-৪)

ফ্রি ওয়েবমাস্টার টুলের ব্যবহার

গুগলসহ অন্যান্য জনপ্রিয় সার্চ ইনিগুলাে ওয়েবমাস্টারদের জন্য এসইও সহায়ক বিভিন্ন ফ্রি টুল প্রদান করে । গুগলের ওয়েবমাস্টার টুলস সাইটের মাধ্যমে একজন ওয়েবমাস্টার তার সাইট সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেতে পারে যা গুগলের সার্চ রেজাল্টে আরাে ভালভাবে ওয়েবসাইটটি উপস্থিত হতে সহায়তা করে । এই সাইট থেকে যে সকল সার্ভিস বিনামূল্যে পাওয়া যায় সেগুলাে হল:

•গুগলবট একটি সাইটের কোন অংশ ক্রাউলিং করতে না পারলে তা দেখা যায় ।
•গুগলে একটি XML সাইটম্যাপ সাবমিট করা যায় ।
•robota.txt ফাইল তৈরি করা যায় ।
•title এবং description মেটা ট্যাগে কোন সমস্যা থাকলে তা সনাক্ত করা যায় ।
•যে সকল সার্চ কিওয়ার্ডের ব্যবহারকারীরা ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে সেগুলাে সম্পর্কে জানা যায় ।
•অন্য কোন কোন সাইট ব্যাকলিংক করেছে তা জানা যায় ।
•আরাে নানা ধরনের বিশ্লেষণধর্মী টুল ।

এখানে যদিও আমরা ” সার্চ ইঞ্জিন ” সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আলােচনা করেছি , তথাপি একটি ওয়েবসাইটকে অপটিমাইজ বা উন্নত করার ক্ষেত্রে সাইটের ভিজিটরদের সুবিধার কথাই প্রথমে চিন্তা করা উচিত । কারণ ভিজিটররাই হচ্ছে একটি সাইটের মূল ভুক্তা , কোন সার্চ ইঞ্জিন নয় । আর তারা সাইটকে খুজে পেতে সার্চ ইঞ্জিনকে একটি মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করে মাত্র । এসইও একটি সময় সাপেক্ষ ব্যাপার এবং একটি চলমান প্রক্রিয়া । রাতারাতি একটি ওয়েবসাইটকে সার্চ ইঞ্জিনের প্রথম পাতায় নিয়ে আসা যায় না । তবে নিয়মিত উন্নয়ন করতে থাকলে এর ফলাফল অনেক সুদূরপ্রসারী ।

আয়ের উপায় :

SEO এর মাধ্যমে আয়ের বিভিন্ন উপায় রয়েছে । আপনি যদি নিজের সাইটের জন্য SEO করে থাকেন এবং এর মাধ্যমে সাইটে অধিক সংখ্যক ভিজিটর নিয়ে আসতে পারেন তাহলে নিঃসন্দেহে সাইটটি থেকে যেকোন ধরনের সার্ভিস বা পণ্য বিক্রি করতে পারবেন । অনেকে আবার বিজ্ঞাপন থেকে আয় করেন । ইন্টারনেটে বিজ্ঞাপন থেকে আয়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় পদ্ধতি হচ্ছে Google Adsense এর মাধ্যমে । বিজ্ঞাপনের পাশাপাশি আউটসাের্সিং মার্কেটপ্লেসগুলােতেও SEO ভিত্তিক নানা কাজ পাওয়া যায় । কাজগুলাের মধ্যে রয়েছে কিওয়ার্ড রিসার্চ , ব্যাকলিংক জোগাড় করা , অন পেজ অপটিমাইজেশন , কন্টেস্ট লেখা , এসইও কনসালটেন্ট ইত্যাদি ।

=>ডােমেইন নেইম :
SEG এর ক্ষেত্রে ডােমেইন নেইম অনেক গুরুত্বপূর্ণ তাই আপনার ওয়েবসাইটির বিষয়বস্তুর সাথে মিল রেখে ডােমেইন নেইম ক্রয় করবেন ।
=> ট্যাগ : প্রথমেই বিভন্ন ট্যাগ নিয়ে শুরু করন ,

১ , পেইজ title ট্যাগ :

এটি ওয়েবসাইট এর পেইজ টাইটেলই একজন ব্যবহারকারী ও সার্চ ইঞ্জিন কে বলে দেয় যে উক্ত ওয়েবসাইট কি কি আছে । তাই একটি ওয়েবসাইটের টাইটেলটি নির্বাচন করা গুরুত্বপূর্ন । তবে অবশ্যই আপনার সাইট এর সাথে অসম্পর্কিত টাইটেল দেয়া থেকে বিরত থাকবেন । যেমন – আমরা যদি Google এ Google map লিখে সার্চ দেই তাইলে দেখবেন ।

সার্চ দেয়া কীওয়ার্ডটি টাইটেল থেকে নিয়ে নিছে ।

কিভাবে কোথায় লিখবেন :

সাধারনত এই টাইটেলটি ওয়েবসাইট এর পেইজ এর < head > < title > _____seen_____ < / title > < / head > ট্যাপ এর ভেতর । { ® , , ! * , ) . ) – এই চিহ্নগুলাে ব্যবহার থেকে বিরত থাকবেন ।
সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন “SEO” নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা (পর্ব-৪)
এখান থেকে বিস্তারিত ভাবে Google কিভাবে ক্রাউলিং ও ইনডেক্সিং করে দেখে নিতে পারেন
http://googlewebmastercentral.blogspot.com/2007/11/anatomy-of-search-result.html

২ . Description মেটা ট্যাগ :

Description মেটা ট্যাগ হল HTML এর আরেকটি ট্যাগ, এটিও ওয়েব সাইটের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য গুলােকে সার্চ ইঞ্জিনের কাছে প্রকাশ করে থাকে । এখানে আপনার ওয়েবসাইট এর সংক্ষিপ্ত বিবরন লিখবেন । অবশ্যই ভাল ফলাফল এর জন্য আপনার সাইট এর সাথে সম্পর্কিত কীওয়ার্ড দিয়ে লিখবেন এবং সঠিক বানান এর দিকে খেয়াল রাখবেন । “_________” এর ভেতর লিখতে

facebook এর ওয়েবসাইটের Description মেটা ট্যাগ :
< meta name="description" content=" Facebook is a social utility that connects people with friends and others who work, study and live around them. People use Facebook to keep up with friends, upload an unlimited number of photos, post links and videos, and learn more about the people they meet." / >
সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন “SEO” নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা (পর্ব-৪)

৩ , keyword মেটা ট্যাগ :

সাইটের জন্য এক বা একাধিক নির্দিষ্ট কীওয়ার্ড ( keyword ) বা শব্দগুচ্ছ বাছাই করতে হয়। কিওয়ার্ড নিয়ে গবেষণার জন্য সবচেয়ে ভাল হচ্ছে গুগল এডওয়ার্ডের কিওয়ার্ড টুলটি
http://adwords.google.co.uk/select/KeywordToolExternal কীওয়ার্ড বাচাই করে নিমের মত লিখুন
সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন “SEO” নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা (পর্ব-৪)

Heading ট্যাগ :
সঠিকভাবে হেডিং ওয়েব সাইটের প্রধান পেজের হেডিং টাইটেলে ও ট্যাগ ব্যবহার করা উচিত । এছাড়া , ঐ ট্যাগ ব্যবহার করাও গুরত্বপূর্ণ । বিভিন্ন ধরনের হেডিং ট্যাগ ব্যবহার করলে পেজের বিষয়বস্তুর উপর এক ধরনের অপ্রাধিকার তালিকা সৃষ্টি হয় যা সার্চ ইঞ্জিনকে সাইটটা ইনডেক্স করতে সহায়তা করে ।
সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন “SEO” নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা (পর্ব-৪)
সার্চ ইঞ্জিন ফ্রেন্ডলি URL এর ব্যবহার :

একটা সাইটের url যদি ভাল হয় তাহলে ইউজারদের জন্য যেমন সুবিধা হয় । url টা মনে রাখতে তেমনি সার্চ ইঞ্জিনও এটা পছন্দ করে । url অবশ্যই পেজের তথ্যের সাথে সম্পর্কযুক্ত শব্দ দ্বারা হওযা ভালো । এতে তথ্যের গুরত্ব বেড়ে যায় । অনেকে শুধু id অথবা বাজে ধরনের বিভিন্ন প্যারামিটার দ্বারা url তৈরি ও ব্যবহার করে যা সম্পূর্ণভাবে পরিত্যাগ করা উচিত। অনেক শব্দ দ্বারা খুব বেশি বড় url পরিত্যাগ করা উচিত।


2 COMMENTS