গত বছত তথ্যমন্ত্রী ডাঃ হাসান মাহমুদ বলেছেন যে সরকার অনলাইন নিউজ পোর্টালের নিবন্ধন শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবং যারা সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ে নিবন্ধন পাবেন না তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

তারই ধারাবাহিকতায় বুধবার তথ্যমন্ত্রী হাসান মাহমুদ বলেছেন, এটি একটি ধারাবাহিক প্রক্রিয়া হওয়ায় অনলাইন নিউজ পোর্টালগুলির নিবন্ধন নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার দরকার নেই।
অনলাইন নিউজ পোর্টাল রেজিস্ট্রেশন সম্পর্কে চিন্তা করার দরকার নেই - তথ্য মন্ত্রী

সচিবালয়ে সাংবাদিকদের উদ্দেশে মন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।

মন্ত্রী বলেন, অনলাইন নিউজ পোর্টালগুলির একটি তালিকা তদন্ত সংস্থাগুলিতে নিবন্ধনের জন্য আবেদন করেছে এবং এজেন্সিগুলি থেকে ছাড়পত্র পেয়েছে এমন ৩৪ অনলাইন নিউজ পোর্টালের একটি তালিকা প্রকাশ করেছে।

অনলাইন পত্রিকার অনলাইন সংস্করণের তালিকাও পরে প্রকাশ করা হবে বলেও তিনি জানান।

হাসান মাহমুদ বলেছেন, অনেক প্রতিষ্ঠিত ও জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টালের নাম প্রকাশিত তালিকায় প্রকাশিত হয়নি, তিনি আরও বলেন, তারা বারবার তদন্ত সংস্থাগুলিকে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলছে।

তিনি বলেছিলেন, “তদন্ত সংস্থা থেকে ইতিবাচক প্রতিবেদন পেলে সমস্ত নিউজ পোর্টাল নিবন্ধন করতে সক্ষম হবে।”

ফেসবুক, টুইটার এবং ইউটিউবের মতো সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে মাহমুদ বলেছিলেন যে দেশে তাদের পরিচালনার বিষয়ে গাইডলাইন স্থির করতে এবং তাদেরকে সরকারী করের আওতায় আনার জন্য একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় সংস্থা গঠন করা হয়েছে।