আস্সালামু-আলাইকুম। কেমন আছেন আপনারা। অনেক দিন পর আবার আপনাদের মাঝে ফিরে আসলাম নতুন কিছু নিয়ে। আজ আমি আপনাদের সাথে কথা বলবো কিছু গুরুত্বপূর্ণ এপপ্স নিয়ে যেগুলো আমাদের দৈনন্দিন জীবনে ব্যবহার না করলেই নয়।বর্তমান এই যুগে সবার হাতেই স্মার্টফোন। আর এই স্মার্টফোনকে আরো স্মার্ট করার জন্য বের হচ্ছে নতুন নতুন এপপ্স,গেমস ইত্যাদি।তাই এই টিউটোরিয়ালে আমি আপনাদের এমন ১০টি গুরুত্বপূর্ণ এপপ্স এর সাথে পরিচয় করিয়ে দিব যেগুলো আপনার জীবনকে আরো সহজ করে দিবে।

English bangla dictionary: এই এপপ্সটি প্রায় প্রত্যেকটি মোবাইলে থাকা অধিক গুরুত্বপূর্ণ। কারণ আমাদের লেখাপড়ায়,বিভিন্ন ইংরেজি সংবাদ, বা কোনো ইংলিশ মুভি তে অনেক নতুন শব্দের সাথে পরিচয় হতে হয়। এই এপপ্স টি সেই শব্দকে বাংলায় ট্রান্সলেট করে বুঝিয়ে দেয় আমাদের।

Lastpass : এই এপপ্সটির কাজ হলো ইউজারের পাসওয়ার্ড সংরক্ষণ করা।আমরা প্রত্যেকদিন প্রায় বিভিন্ন সাইটে ভিজিট করি। নতুন নতুন একাউন্ট, সাথে আবার পাসওয়ার্ড মনে রাখার ঝামেলা। তাই এই এপটি আপনার,আমার সবার সেই ঝামেলা থেকে সুরক্ষা দিবে।

Picsart photo studio :এই এপটির সাথে তো আমরা প্রায় সবাই পরিচিত। দৈনন্দিন জীবনে বন্ধুবান্ধব, বাবা-মা, আরো অনেকের সাথে প্রিয় মুহূর্ত গুলো ক্যামেরা বন্ধি করে রাখি । যখন সেই ছবি গুলো কোনো সোশ্যাল- মিডিয়ায় শেয়ার করার দরকার হয় তখন ভালো করে এডিট করতে হয়। সেক্ষেত্রে এই এপটি অনেক কাজে দেয়।

Evernote : এটি সাধারণত কোনো কিছু নোট করে রাখার এপপ্স।বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কিছু আমাদের মোবাইলে নোট করে রাখতে হয়। তখন এই এপটি কাজে দিবে।নিজেকে অর্গানাইজ রাখার জন্য এই এপপ্সটির কোনো তুলনা নেই।

Xender :স্মার্টফোন এর কোনো ফাইল, ছবি, বা যেকোনো কিছু এক ডিভাইস থেকে অন্য ডিভাইস এ ট্রান্সফার করার জন্য এই এপটি ব্যবহার করা যায়। বর্তমানে shareit অনেক টা বেগডেটেড হয়ে গেছে। খারাপ স্পিড,বিরক্তিকর এড ইত্যাদির কারণে shareit ব্যবহারকারি অনেক কমে গেছে। তাই এই এপটি ব্যবহার এ আপনি অনেক ফাস্ট ফাইল ট্রান্সফার করতে পারবেন কোনো রকম ঝামেলা ছাড়াই।

জীবনে চলার সঙ্গী হিসেবে স্মার্টফোন আমাদের জীবনকে করেছে আরো স্মার্ট। আর এর সাথে উপরক্ত এপগুলো জীবনকে আরো সুন্দর করে গড়ে তুলতে সহায়তা করবে বলে আমি আশা করি।
–উপরোক্ত সব এপ আপনি প্লে-স্টোরে সার্চ দিলেই পেয়ে যাবেন।

আমি সাজিদ চৌধুরী ইমন।একজন ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপার এবং কন্টেন্ট রাইটার।অন্যদের ওয়েব ডেভেলপমেন্ট করে দেয়ার পাশাপাশি আমি প্রতিনিয়ত আমার সাইট it-kothon.com এ ওয়েব ডিজাইন, ডেভেলপমেন্ট,ফ্রিল্যান্সিং, কন্টেন্ট রাইটিং সহ বিভিন্ন ডিজিটাল স্কিল রিলেটেড কন্টেন্ট লিখে যাচ্ছি।